মেনু নির্বাচন করুন

প্রখ্যাত ব্যক্তিত্ব

মরহুম আবুল হাসান শাহ মুহাম্মাদ ফায়েজ উল্লাহ শাজুলি (র.)

অন্যতম একজন অলি আল্লাহ, দায়ী ইলাল্লাহ ও হাদীয়ে কামেল ছিলেন। জন্মস্থান সন্দিপ, চট্রগ্রাম। আনুমানিক ১৯৭৪ খ্রি. ৪নং পালাখাল মডেল ইউনিয়নের মেঘদাইর গ্রামে আসেন। পরবর্তিতে ১৯৮৬ খ্রি. দহুলিয়া গ্রামে আগমন করেন ও এলাকাবাসীর সহযোগিতায় বসতি স্থাপন করেন। তাঁর ঈমান, তাকওয়া ও নেক আমল এবং সুন্নাতে রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের পরিপূর্ণ অনুসরন ও অনুকরন দেখে অত্র এলাকার মুসলিম, হিন্দু নির্বিশেষে আপামর জনসাধারণ তাঁর কাছে দুআর জন্য ছুটে আসতেন। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ তাঁকে ওয়াজ-মাহফিলে দাওয়াত দিয়ে নিয়ে যেতেন এবং তাঁর কাছ থেকে ইসলামের সুশীতল শিক্ষা ও দীক্ষা নিতেন। দ্বীন ইসলামের দাওয়াত জারি রাখার লক্ষ্যে তিনি দহুলিয়া গ্রামে শাজুলিয়া দরবার শরীফ নামক আধ্যাত্মিক মারকাজ গড়ে তোলেন এবং ইসলামী জলসা ও মাহফিলের আয়োজন শুরু করেন। তিনি ২০০৫ খ্রি. শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করে মহান মাওলার সান্নিধ্যে চলে গেছেন ওপারে সুন্দর জীবনে। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

মরহুম আল্লামা ফায়েজ উল্লাহ শাজুলি (র.) এর ইন্তেকালের ৩বছর পূর্বে ২০০৩ সাল হতে তাঁর পঞ্চম পুত্র আল্লামা আবুল হাসান শাহ মুহাম্মাদ রুহুল্লাহ শাজুলিকে শাজুলিয়া দরবার শরীফের মূল গদ্দিনশীনের দায়িত্ব অর্পন করেন। তখন থেকেই দরবার শরীফের মুরিদীন, মুহিব্বীন ও মুবাল্লিগীনকে নিয়ে দেশব্যাপী দ্বীন ইসলামের অমীয় শান্তির বাণী প্রচারে এবং মানুষের ইহকালীন ও পরকালীন শান্তির লক্ষ্যে আত্মশুদ্ধি অর্জন ও বেলায়েত হাসিলের দাওয়াতে আত্মনিয়োগ করেন। মরহুম শাজুলি হুজুরের মতই বর্তমান পীর সাহেব হুজুরের দাওয়াতের ওসিলায় অনেক পথভোলা মানুষ সুপথ পেয়েছে, মাদকাসক্ত ব্যক্তি মাদক ত্যাগ করেছে, অন্যায়কারীগণ তাওবা করে ফিরে এসেছে ন্যায়ের পথে। এছাড়া, মুসলিম ও হিন্দু দুই সম্প্রদায়ের মানুষের মধ্যে পারস্পরিক ভ্রাতৃত্ব ও সম্প্রীতি সুরক্ষায় ইতোমধ্যেই আল্লামা রুহুল্লাহ শাজুলি প্রশাসনসহ উভয় ধর্মের মানুষের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছেন। বেশ কয়েকটি সাম্প্রদায়িক সমস্যায় তাঁর বলিষ্ঠ নেতৃত্বে পরিপূর্ণ শান্তি বজায় রাখতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি একাধারে একজন আওলাদে অলী, বিখ্যাত মুফাসসির, বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন, সুবক্তা ও ইসলামি গবেষক হিসেবে সুন্নাতে রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের আলোকে শান্তির বার্তা বহন করে যাচ্ছেন সারা দেশে। তাঁর দক্ষ পরিচালনায় শাজুলিয়া দরবার শরীফের অন্যান্য কর্মকাণ্ডের মধ্যে রয়েছে সাপ্তাহিক ও মাসিক তা’লিম, খাস তা’লিম, তাফসির ও ইফতার মাহফিল এবং বার্ষিক মাহফিল। প্রতিষ্ঠানের মধ্যে হিফজুল কুরআন মাদরাসা, ইয়াতিমখানা, দাখিল মাদরাসা, মহিলা মাদরাসা (প্রস্তাবিত) ও আর্ত-মানবতার কল্যাণে শাজুলিয়া ফাউণ্ডেশন সহ বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান পরিচালিত হচ্ছে।